1. Nazmulislam8312@gmail.com : Bidhan Chakraborty : Bidhan Chakraborty
  2. yenboravisluettah@gmail.com : bimak73555 :
  3. liubomir8745@gmail.com : neoboxtcallect :
  4. test10960893@mailbox.imailfree.cc : test10960893 :
  5. test11024757@mailbox.imailfree.cc : test11024757 :
  6. test12897494@mailbox.imailfree.cc : test12897494 :
  7. test14770571@email.imailfree.cc : test14770571 :
  8. test14812676@email.imailfree.cc : test14812676 :
  9. test16697779@mailbox.imailfree.cc : test16697779 :
  10. test18946917@email.imailfree.cc : test18946917 :
  11. test22811147@email.imailfree.cc : test22811147 :
  12. test26718054@email.imailfree.cc : test26718054 :
  13. test27587170@email.imailfree.cc : test27587170 :
  14. test30217698@email.imailfree.cc : test30217698 :
  15. test32402305@email.imailfree.cc : test32402305 :
  16. test3470053@mailbox.imailfree.cc : test3470053 :
  17. test36191506@mailbox.imailfree.cc : test36191506 :
  18. test37304233@email.imailfree.cc : test37304233 :
  19. test37683316@email.imailfree.cc : test37683316 :
  20. test37895750@email.imailfree.cc : test37895750 :
  21. test38755778@mailbox.imailfree.cc : test38755778 :
  22. test3922275@mailbox.imailfree.cc : test3922275 :
  23. test41408743@mailbox.imailfree.cc : test41408743 :
  24. test45399974@email.imailfree.cc : test45399974 :
  25. test45407438@email.imailfree.cc : test45407438 :
  26. test47455642@mailbox.imailfree.cc : test47455642 :
  27. test48748669@email.imailfree.cc : test48748669 :
তানোরে সুজনবিরোধী প্রচার কার স্বার্থে ?  - দৈনিক একাত্তর প্রতিদিন
June 18, 2024, 9:05 pm
Title :
বর্তমান সরকারের আমলে ব্যাপক উন্নয়নের ফলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছেঃ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক কাজিপুর থানার সহকারি উপ পুলিশ পরিদর্শক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন বাঘায় সাংবাদিকদের সাথে ইউএনও’র মতবিনিময় সভা। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জাহাঙ্গীর আলমের পরাজয়ে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ দক্ষ শিক্ষার্থী গড়ার লক্ষে মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে শেখ রাসেল ইনোভেশন ফেয়ার অনুষ্ঠিত তানোরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ময়নার বিকল্প নাই ময়মনসিংহ সদরে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীক নিয়ে আলোচনায় তরুণ নেতা আলভি তারাকান্দায় সাজ্জাপ্রাপ্ত দুই আসামিসহ গ্রেফতার ৩ অপারেটরের কারণে ধানুরায় কাপ-পিরিচের ভরাডুবি

তানোরে সুজনবিরোধী প্রচার কার স্বার্থে ? 

  • Update Time : সোমবার, আগস্ট ৭, ২০২৩
  • 55 Time View

আলিফ হোসেন, তানোরঃ
রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে স্থানীয় সাংসদের আস্থাভাজন, আদর্শিক, জনপ্রিয় ও তরুণ নেতৃত্ব আবুল বাসার সুজন। সাংসদের আহবানে সাড়া দিয়ে তিনি আওয়ামী লীগের উন্নয়ন ও অর্জনের চিত্র তুলে ধরে নিরলসভাবে নৌকার প্রচারণায় ছুটে চলেছেন। কিন্ত্ত সুজনের বিরুদ্ধে মিথ্যা, মানহানিকর গুজব ছড়ানো হচ্ছে কার স্বার্থে ? কার ঈঙ্গিতে কারা এসব করছে, তাদের অতীত কি;? সেই অতীতের কথা তাদের কি স্মরণে
নাই। বে-সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জনবল নিয়োগ স্বাভাবিক পক্রিয়া। পদ শূণ্য হলেই সেখানে জনবল নিয়োগ করা হবে। সুজন যখন ছিলোনা তখন কি নিয়োগ হয়নি, সুজন যখন থাকবে না তখন কি নিয়োগ হবে না। মদ্দা কথা সুজন কি নিয়োগ পক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করে ? তাহলে বার বার কেনো সুজনবিরোধী প্রচার ?
জানা গেছে, তানোর পৌর আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ধরে ছিলো মেরুদন্ডহীন নড়বড়ে। আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে পরিচ্ছন্ন নতুন মুখ সুজনকে মাঠে নামানো হয়। সাংসদের আহবানে সাড়া দিয়ে সুজন মাঠে নামেন এবং দুর্বল আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করে তোলেন। তার ফলশ্রুতিতে তানোর পৌরসভা সৃষ্টির পর প্রথম বারের মতো আওয়ামী লীগের মেয়র নির্বাচিত হয়। অথচ সুজন আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল কোনো পদে নাই, দল, নেতা ও নেতৃত্বের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকেই তিনি দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি পকেটের পয়সা বিনিয়োগ করে দলকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর পক্ষে ভোট প্রার্থনা করে চলেছেন। অথচ তিনি কখানোই নিজের কথা বলেননি। স্থানীয় সাংসদের দিকনির্দেশনায় তিনি তানোর পৌর আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি উপজেলার তরুণ সমাজের মধ্যে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনে আওয়ামী লীগমূখী করতে সক্ষম হয়েছেন। অথচ এমন স্বজ্জন একজন মানুষের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত হয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে।
জানা গেছে, তানোরের শান্তিপ্রিয় সহাবস্থানের রাজনৈতিক অঙ্গনে হঠাৎ করেই উত্তাপ ছড়িয়েছে জনমনেও দেখা  দিয়েছে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া। স্থানীয় একটি অশুভ চক্র সাংসদের কাছে থেকে অবৈধ সুবিধা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে অভিনব কৌশলের আশ্রয় নিয়েছে। এরা সরাসরি সাংসদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে ব্যর্থ হয়েছেন। এবার  কৌশলে সাংসদের অনুগত ও বিশস্ত নেতৃত্বের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে মুলত সাংসদকে বির্তকিত করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে । অশুভ চক্রের উদ্দেশ্যে সাংসদের অনুগত ও বিস্তত্ব কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে একে একে সাংসদের কাছে থেকে  তাদের সরিয়ে সাংসদকে একা করে তার নাম ভাঙিয়ে বাণিজ্য করা।
জানা গেছে, অশুভ চক্রের প্রথম টার্গেট সাংসদের  বিশস্ত সৈনিক বিশিষ্ট সমাজসেবক ও তরুণ শিল্পপতি আবুল বাসার সুজন। সুজনকে সরাতে পারলেই থেমে যাবে তরুণ জনগোষ্ঠীর একটি বড় অংশ।
স্থানীয় রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের ভাষ্য, সামনে সাধারণ নির্বাচন একটা অগ্নি পরীক্ষা। সাংসদ এই নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে তার যে রাজনৈতিক কৌশল গ্রহণ করা দরকার সেটা করবেন। আবার দলের ঐক্য ও তার নেতৃত্ব ধরে রেখে দলের বিজয় ঘটাতে যখন যাকে যেখানে রাখা প্রয়োজন মনে হবে তিনি তখন তাকে সেখানে রাখবেন। সাংসদের প্রধান টার্গেট তরুণ ভোটার, সেই লক্ষ্যে তিনি তরুণ নেতৃত্ব আবুল বাসার সুজনকে মাঠে নামিয়েছেন। তার উদ্দেশ্যে তরুণ ভোটারদের মাঝে আওয়ামী লীগের উন্নয়ন ও অর্জন তুলে ধরে নৌকার পক্ষে নিয়ে আশা। আবুল বাসার সুজন মাঠে নেমে মসজিদ-মাদরাসা-মন্দির-গীর্জা, রাস্তা-ঘাট উন্নয়নে আর্থিক অনুদান, যুবকদের মধ্যে খেলা-ধুলার সামগ্রী বিতরণ ও  ব্যক্তিগত সাহায্যে-সহযোগীতা যা কিছু করছেন তা সাংসদের পক্ষ থেকে। তিনি কখানো নিজের কথা বলেননি, সব সময় বলেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরীর  পক্ষ থেকে তার এসব ক্ষুদ্র প্রয়াস। অথচ অশুভচক্র প্রচার করছে এমপির ২০ কোটি টাকা ঋণ আছে সেটা পরিশোধের নামে সুজন কোটি কোটি টাকা নিয়োগ বাণিজ্য করছে। আবার কখানো বলছে ৬০ কোটি টাকার নিয়োগ বাণিজ্য করেছেন, সুজন যেখানে কাউকে নিয়োগ দিলো না সেখানে কোটি কোটি টাকা বাণিজ্য  করলো কিভাবে। এছাড়া সুজন কি নিয়োগ দেবার মালিক যদি সেটা হয় তাহলে এতোদিন নিয়োগ দিয়েছেন কে ? একশ’ লাখে এক কোটি তাহলে উপজেলার সকল স্কুল-মাদরাসায় কর্মচারী নিয়োগ দিয়ে কি আদৌ ৬০ কোটি টাকা বাণিজ্যে করা সম্ভব ? আবার ৮০ দশকের সিআইপি এমপি ফারুক চৌধুরী চার দশক পরে বিশ কোটি টাকা ঋণগ্রস্ত এটা কি বিশ্বাসযোগ্য না তার নামের সঙে মানায় ? আসলে তাদের টার্গেট তো সুজন নয় টার্গেট এমপি, তাই সুজনকে জড়িয়ে এমপিকে বির্তকিত করার অপচেষ্টা। সুজন যদি অপরাধী হয় সে দায় সুজনের এখানে এমপিকে জড়ানোর কি আছে। এছাড়াও সুজনের যদি কোনো অনিয়ম-দুর্নীতি হয়ে থাকে তাহলে সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণসহ সেটা তুলে ধরে প্রচার করা হোক। কবে কার কাছে থেকে কত টাকা নিয়েছেন তার সুনিদ্রিষ্ট তথ্য-উপাত্য ছাড়া মনগড়া অভিযোগ করা হচ্ছে কেনো।
অন্যদিকে সুজনের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যাচার করায় জনমনে চরম অসন্তোষ সৃস্টি হয়েছে। তৃণমুল মানুষের ভাষ্য, যেভাবে হোক আর যে কারনেই হোক সুজনের মাধ্যমে প্রতিদিন কিছু মানুষতো উপকৃত হচ্ছে, তাহলে তার বিরুদ্ধে এসব মিথ্যাচার করা হচ্ছে কার স্বার্থে। আর সুজন তো কখানো তাঁর জন্য ভোট চাইনি তিনি সব সময় বলেছেন উন্নয়নের সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে এলাকার উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে প্রতিটি নির্বাচনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনিত নৌকা প্রতিকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে। অশুভ চক্রের আশঙ্কা সুজন মানুষের মন জয় করে এভাবে রাজনীতি করলে আগামিতে তানোরের মাটিতে তাদের দাঁড়ানোর স্থান থাকবে না এবং এমপির নাম ভাঙিয়ে অবৈধ সম্পদ অর্জন করাও হবে না। এমনকি ইতমধ্যে অনেকের একচ্ছত্র আধিপত্যর অবসান হতে চলেছে।
এমন আশঙ্কা থেকেই তাদের
সুজনবিরোধী প্রচারণা। তবে রাজনীতিতে মিথ্যাচার করে কখানো কারো পথচলা ঠেকানো যায় না। সুজনেরও গতিরোধ করা যাবো না।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BD IT HOST