1. Nazmulislam8312@gmail.com : Bidhan Chakraborty : Bidhan Chakraborty
  2. yenboravisluettah@gmail.com : bimak73555 :
  3. liubomir8745@gmail.com : neoboxtcallect :
  4. test10960893@mailbox.imailfree.cc : test10960893 :
  5. test11024757@mailbox.imailfree.cc : test11024757 :
  6. test12897494@mailbox.imailfree.cc : test12897494 :
  7. test14770571@email.imailfree.cc : test14770571 :
  8. test14812676@email.imailfree.cc : test14812676 :
  9. test16697779@mailbox.imailfree.cc : test16697779 :
  10. test18946917@email.imailfree.cc : test18946917 :
  11. test22811147@email.imailfree.cc : test22811147 :
  12. test26718054@email.imailfree.cc : test26718054 :
  13. test27587170@email.imailfree.cc : test27587170 :
  14. test30217698@email.imailfree.cc : test30217698 :
  15. test32402305@email.imailfree.cc : test32402305 :
  16. test3470053@mailbox.imailfree.cc : test3470053 :
  17. test36191506@mailbox.imailfree.cc : test36191506 :
  18. test37304233@email.imailfree.cc : test37304233 :
  19. test37683316@email.imailfree.cc : test37683316 :
  20. test37895750@email.imailfree.cc : test37895750 :
  21. test38755778@mailbox.imailfree.cc : test38755778 :
  22. test3922275@mailbox.imailfree.cc : test3922275 :
  23. test41408743@mailbox.imailfree.cc : test41408743 :
  24. test45399974@email.imailfree.cc : test45399974 :
  25. test45407438@email.imailfree.cc : test45407438 :
  26. test47455642@mailbox.imailfree.cc : test47455642 :
  27. test48748669@email.imailfree.cc : test48748669 :
কেশরহাট স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শোকজ - দৈনিক একাত্তর প্রতিদিন
May 20, 2024, 2:54 pm

কেশরহাট স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শোকজ

  • Update Time : শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০২৩
  • 59 Time View

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
রাজশাহীর তানোরের সীমান্তবর্তী কেশরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের বহুল আলোচিত প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কিন্ত্ত শফিকুল ইসলাম সেই নোটিশ গ্রহন না করে আবারো তার বেপরোয়া আচরণের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছে। এতে প্রশ্ন উঠেছে আসলে তাঁর খুঁটির জোর কোথায় ? কার নেপথ্যে মদদে তিনি এতো ক্ষমতাধর হয়েছেন ?
এদিকে প্রধান শিক্ষককে শোকজ করার খবর ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষক-শিক্ষার্থী  অভিভাবকদের মাঝে পরম স্বস্তি দেখা দিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এদিন অনেক অভিভাবক ও  ব্যবসায়ী মিষ্টি বিতরণ করেছেন। তাদের প্রত্যাশা এর মধ্যদিয়ে দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষককে অপসারণ করা হলে ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তার হারানো গৌরব ফিরে পারে।
স্থানীয়রা জানান, গত ২২ আগস্ট সোমবার সকালে প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে কেশরহাট বাজার বনিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিঠুর নেতৃত্বে এলাকাবাসী বিক্ষোভ ও  মানববন্ধন করেন। এতে প্রধান শিক্ষক ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং প্রতিশোধ নিতে তিনি কৌশলে মিঠুকে তার অফিস কক্ষে ডেকে নেয়। অফিস কক্ষেই তিনি তার ক্যাডার বাহিনী ওই এলাকার মৃত মকবুল হোসেনের পুত্র মহসীন আলী, আক্তারুল ইসলাম ও মনাকে দিয়ে হাবিবুর রহমান মিঠুকে  হাতুড়ি পেটা করে। মিঠুকে উদ্ধার ও আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) নেয়া হলে তার মাথায় ৩১টি সেলাই দিতে হয়েছে। একাধিক অভিভাবক বলেন, দূর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষককে অপসারণ না করলে তারা তাদের সন্তানদের এখানে আর পড়াবেন না এবং তার অপসারণের দাবিতে লাগাতার আন্দোলন কর্মসুচি দিবেন।
এবিষয়ে কেশরহাট উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি রুস্তম আলী প্রামানিক বলেন প্রধান শিক্ষক কেন্দ্রিক ঘটনায় দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ। প্রধান শিক্ষক অনিয়ম দুর্নীতি করেছেন। সেদিন প্রধান শিক্ষক এবং মিঠুর ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে বিদ্যালয়ে সংঘাতের ঘটনা ঘটে। বিদ্যালয়ে অনেক শিক্ষার্থী আমি তাদের ধরে রাখার চেষ্টা করেছি। প্রধান শিক্ষকের আহবানে জরুরী কমিটির মির্টিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ি তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। তিনি মিটিং আহবান করলেও উপস্থিত ছিলেন এবং নোটিশ গ্রহণ করেন নি। এবিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলাম বলেন, এদিন সহকারি প্রধান শিক্ষক এবং সভপতি উপস্থিতিতেই এসব কিছু ঘটেছে। উনারা আমার বিরুদ্ধে চক্রান্তমুলক দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন। বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজের জন্য টাকা উত্তোলন করা হয়েছে এবং কাজ করা হচ্ছে। সেখানে কমিটির সিদ্ধান্তনুযায়ি আমার এবং সহকারি প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির স্বাক্ষরেই টাকা উত্তোলনসহ ব্যয় করা হয়েছে। আমাকে অপসারণ করে আমার জায়গায় অন্য কাউকে বসানোরর মিথ্যা ষড়যন্ত্র চলছে। বিদ্যালয়ের সকল অর্থের আয় ব্যয়ের সঠিক তথ্য প্রমাণ রয়েছে। মিথ্যা অপপ্রচার চালানোর কিছুই নাই। যদি তদন্ত আসে সবকিছুর সঠিক প্রমান উপস্থাপন করা হবে। এছাড়াও কারণ দর্শানোর নোটিশ সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, তারা আমার অনুপস্থিতেই কমিটির মিটিং করে নীতিমালা বহির্ভুত ভাবে আমাকে নোটিশ প্রদান করেছেন। মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা নীতিমালা ৩৩/৩ ধারা লংঘন করা হয়েছে। ৩৬/২ ধারা অনুযায়ি এ সিদ্ধান্ত বাতিল হয়ে যাবে। এজন্য আমি নোটিশ গ্রহণ করিনাই। #

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BD IT HOST